স্বপ্নের নায়ক সেই তুমি • পর্ব-২ | Jemon Blog
ঢাকাবুধবার - ১ ডিসেম্বর ২০২১
  1. Ecommerce
  2. অনলাইন জব
  3. গল্প জানুন
  4. টেক আপডেট
  5. লাভ স্টোরি
  6. সাকসেস লাইফ
  7. সোস্যাল আপডেট
  8. হেলথ টিপস

স্বপ্নের নায়ক সেই তুমি • পর্ব-২

যেমন ব্লগ ডেক্স
ডিসেম্বর ১, ২০২১ ৫:০৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

হয়তো আমার এমন হঠাৎ অদ্ভুত পরিবর্তন দেখে ভাষার অনেকেই বিস্মিত হয়ে গেছে বাস আর অনেকেই কিছু বুঝতে পারছে কিন্তু তখন আমি খুবই ছোট থাকায় কারো মনের বাসনা কারো মনের কথা বুঝতে পারতাম না আমি এখন যতটা বুঝতে পারি তখন এগুলো বুঝতে পারতাম না। নায়ক

মেয়েটাকে দেখার জন্য হলেও আমাকে স্কুলে যেতে হবে এই লক্ষ্যে আমি প্রত্যেক দিন স্কুলে যেতাম স্কুল কামাই দিতাম না আবার শুনেছি মেয়েটার রেগুলার পড়া হয় তাই কোনোদিন সারাদিন বকা শুনে না তাই আমিও চেষ্টা করেছি কিভাবে আমার প্রত্যেকদিন পড়া হয় কিভাবে স্যারের বকা না শোনা যায় সেই লক্ষ্যে আমিও প্রত্যেকদিন পড়াতাম অনেক কষ্ট করে হলেও আমি স্যারের দেয়া সব পড়া তৈরি করতাম বাসায় বসে। নায়ক

এভাবে হঠাৎ করে আমার লেখাপড়া আর উন্নতি ঘটে থাকে লেখাপড়া আগের থেকে খুব ভালো হতে থাকে বিষয়টা ছাড়াও লক্ষ করল কিন্তু তেমন রেসপন্স করো না ছাড়া বুঝলো যে হয়তো এখন আমি ভালো হয়ে গেছি ছোটবেলা ফলাফল একটু দুষ্টুমি করবে হয়তো এখন আমি পরিবর্তন হয়ে গেছে। নায়ক

আরো পড়ুনঃ  কিভাবে ফেসবুকে ফলোয়ার অ্যাক্টিভ করা যায়

আমি লক্ষ্য করলাম সারেগামা আমাকে আগের থেকে প্রচুর ভালোবাসতে শুরু করেছেন আগে আমাকে যতটা বকা বকি করত মারধর করতো এখন সেই বকাবকি মারধর করেছে করে না এখনো আমাকে ছাড়ে না ভালোবাসতে লাগলো তারা বুঝতে পারল আমার মধ্যে পরিবর্তন এসেছে কিন্তু তারা জানত না আমি রেগুলার কেন পড়া হয় কিংবা এগুলা কেমনে আসে।

তারা হয়তো বুঝতে পারছে কিনা আমি জানিনা এভাবে আমার পঞ্চম শ্রেণি শেষ হয় এখানে। নায়ক! স্কুল মিস করতাম না খুব জরুরী কাজ না হলে স্কুল আসামিস করতাম না কখনো প্রত্যেক দিন স্কুলে আসতে হবে মেয়েটিকে দেখার জন্য এটা আমার মনে একটা প্রতিজ্ঞা ছিল। মেয়েটির নাম ছিল তানিয়া। আমি প্রায় সময় আত্মানুভূতি রাখতাম। নায়ক

স্বপ্নের নায়ক সেই তুমি • পর্ব-৩

অমিতের সাথে মাঝে মাঝে কথা বলতাম খুব ভালো লাগতো আমাকে জিজ্ঞেস করত তুমি দুষ্টুমি করো কেন তুমি পড়ালেখা করো না আমি বলতাম করেছো তুমি খুব ভালো আমাকে বলে তুমিও খুব ভালো এভাবে মাঝে মাঝে খুব কথা হতো এবার যখন পঞ্চম শ্রেণীতে পরীক্ষা দিলাম তখন এই স্কুলে আর থাকা যাবে না আমাদের শহরের হাই স্কুলে ভর্তি হতে হবে তাই প্রিপারেশন নিলাম বাসা থেকে জানুয়ারি মাসে হাইস্কুলে ভর্তি করে দিল সেখানে ক্লাস করতে হবে অদ্ভুত ব্যাপার সেই একাই জায়গা দুই বছর পরে তা নিয়ে চলে এসেছে বাহ খুব ভালো হয়েছে এখন দুজনে কিস করে তবে একই ক্লাশে হলে আরও বেশি ভালো হতো।

আরো পড়ুনঃ  নিউজ পোর্টাল থেকে ইনকাম

তার পরেও সমস্যা নেই আমাদের একই সময়ে ক্লাস শুরু হয় আবার একই সময়ে ক্লাস ছুটি হয় এই লক্ষ্যে আমরা দুজনেই একসাথে এখন প্রত্যেকদিন বাড়ি আসি আবার বাড়ি যাই অনেক ভালো লাগে। এবার আমরা বিভিন্ন কত কত ভাবে থাকি এখন আমি মোটামুটি ভালো বুঝতে পারি এখন আমি সপ্তম শ্রেণীতে পড়ি পর্যাপ্ত বয়স হয়েছে আমি অনেক কিছু বুঝতে পারি নি এটাও মোটামোটি বড় হয়েছে এখন অনেক কিছু বুঝতে পারে। নায়ক

একদিন আমি মেয়েটাকে জিজ্ঞেস করলাম আচ্ছা তুমি কি কাউকে ভালোবাসো যদিও মেয়েটা বলল না কিন্তু কেন আমি বললাম না আপনাকে জিজ্ঞেস করেছি আমি তখন এতটা অবুঝ মন হয় নিচে কেউ এটার জন্য মাইন্ড করতে পারে রাগ করতে পারে আমি বললাম তোমাকে ভালোবাসি তোমাকে আমার খুব ভালো লাগে মেয়েটা এটা বললো আচ্ছা ঠিক আছে আমিও তোমাকে ভালবাসি তখন হয়তো ভালোবাসা কিভাবে হয় মন থেকে নাকি আবেগ থেকে এগুলো বুঝ না। নায়ক

এভাবে আমাদের ভালোবাসার চলতে থাকে আমরা প্রত্যেকদিন বিভিন্ন কথা বলি বিভিন্নভাবে আসা-যাওয়া করে আমি ওর হাত ধরে হাঁটি এভাবে আমাদের ভালোবাসা চলতে থাকে চলতে থাকে একপর্যায়ে আমার এসএসসি পরীক্ষা চলে এসেছে আমাকে পরীক্ষা দিতে হবে পরীক্ষা দেয়ার পরে হয়তো আমাকে কলেজে যেতে হবে সেখানে আর তা নিয়ে থাকবে না বিষয়ট একটু দুঃখজনক হলেও কিছু করার থাকে না আমার হাতে।

আরো পড়ুনঃ  রসুন চাষ করার পদ্ধতি

মেনে নিয়ে আমি শহরের নতুন কলেজে ভর্তি হলাম সেখানে কাজ করতে লাগলাম মাঝে মাঝে আমার পুরনো স্কুলে আসতাম সেটা নিয়ে কে দেখার জন্য কথাবার্তা বলতাম আবার মাঝে মাঝে তানিয়া দের বাসায় ওরা আমার নাম্বারে ফোন দিয়ে ওর সাথে কথা বলতাম মাঝে মাঝে মেসেজ করতাম এভাবে চলতে থাকলো আমাদের খুনসুটি। নায়ক

এই গল্পের পরবর্তী পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন।