ফেসবুক থেকে ইনকাম করার পদ্ধতি | Jemon Blog
ঢাকাসোমবার - ১৫ নভেম্বর ২০২১
  1. Ecommerce
  2. অনলাইন জব
  3. গল্প জানুন
  4. টেক আপডেট
  5. লাভ স্টোরি
  6. সাকসেস লাইফ
  7. সোস্যাল আপডেট
  8. হেলথ টিপস

ফেসবুক থেকে ইনকাম করার পদ্ধতি

যেমন ব্লগ ডেক্স
নভেম্বর ১৫, ২০২১ ৩:৫৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ফেসবুক থেকে ইনকাম! বর্তমান সময়ে আমাদের সবার হাতেই একটা করে স্মার্টফোন রয়েছে আবার কারও কারও হাতে একের অধিক স্মার্টফোন রয়েছে এই সময়টাতে এ স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে না এমন মানুষ খুবই কম সংখ্যক রয়েছেন। সবাই স্মার্টফোনের সাথে জড়িত এবং স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা কয়েক কোটি বেড়ে যাচ্ছে প্রত্যেক বছর।

স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে ইনকাম করা সম্ভব তবে একটু ডিফিকাল্ট একটু কষ্টকর হতে পারে কিন্তু হ্যাঁ ইনকাম করা সম্ভব। স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে অনেকেই প্রত্যেক ৩০-৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত উপার্জন করছে এবং তারা শুধুমাত্র স্মার্টফোন থেকে সবকিছু কন্ট্রোল করছে‌। তারা যদি পারে স্মার্টফোন থেকে ইনকাম করতে তাহলে আমরা কেন ইনকাম করতে পারব না? হ্যাঁ আমাদের কি ইনকাম করতে হবে এবং ইনকাম পারতে হবে।

ফেসবুক থেকে ইনকাম!
ফেসবুক থেকে ইনকাম করা যায় এটা হয়তোবা অনেকেই আজকে প্রথম শুনবে কিংবা অনেকে জানেই না যে ফেসবুক থেকে ইনকাম করা সম্ভব। যারা জানেন না যে ফেসবুক থেকে ইনকাম করা সম্ভব এবং সেটা মোটামুটি ইজিলি তাদের জন্য বলছি হ্যাঁ ভাই ফেসবুক থেকে উপার্জন করা যায় শুধু ফেসবুক কোম্পানি উপার্জন করবে এমনটা নয় যারা ফেসবুকে ইউজার রয়েছে তারা উপার্জন করতে পারে তবে কিছু মাধ্যম রয়েছে এবং ফেসবুকে নির্দিষ্ট কিছু ট্রাম এন্ড কন্ডিশন রয়েছে যেগুলো ফলো করলে উপার্জন করতে পারেন।

প্রত্যেকটা কোম্পানির একটা নির্দিষ্ট প্রাইভেসি রয়েছে যেগুলো ফলো করতে হবে এবং প্রাইভেসির বাইরে কোন কাজ করলে এতে করে ওই কোম্পানি থেকে বহিষ্কার হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে অনুরূপভাবে ফেসবুকের প্রাইভেসি রয়েছে তাদের প্রাইভেসির বাইরে কিছু করলে ওখান থেকে আপনাকে বহিষ্কার করা হবে তাই আমার সাজেশন থাকবে ফেসবুকে কোন কাজ করার পূর্বে তাদের প্রাইভেট পড়ার জন্য প্রাইভেসি পড়লে আপনি অধিকমাত্রায় তাদের ব্যবহারবিধি বুঝতে পারবেন এতে করে আপনার তাদের প্ল্যাটফর্ম ব্যবহারে কোন ধরনের সমস্যা হবে না।

আরো পড়ুনঃ  স্বাস্থ্য রক্ষা করার উপায়

ফেসবুক ব্যবহার করে উপার্জন করা যায় অনেক মাধ্যম রয়েছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি মাধ্যম হচ্ছে, “ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল, ফেসবুকের ভিডিও মনিটাইজ, ফেসবুকের বুষ্ট সার্ভিস, ফেসবুকে এফিলিয়েট মার্কেটিং সহ আরো বেশ কিছু জনপ্রিয় মাধ্যম রয়েছে।”

মোবাইল দিয়ে কন্ট্রোল করার জন্য ফেসবুকের ভিডিও মনিটাইজেশন এটি আপনি ফলো করতে পারেন। আমি বলছি না যে আপনার এখানে মোটেও ইনভেস্ট নেই হ্যাঁ ইনভেস্ট একটু রয়েছে তবে সেটা অত বেশি না চাইলে আপনি সামলে নিতে পারবেন। ফেসবুকের ভিডিও মনিটাইজ রিকোয়ারমেন্ট রয়েছে আপনার ফেসবুক পেইজে ১০,০০০ ফলোয়ার্স থাকতে হবে এবং আপনার একই পেইজে যে সকল ভিডিও আছে সেইসকল ভিডিও গুলোতে সর্বশেষ ৬০ দিনের মধ্যে ৩০,০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম প্রয়োজন হবে।

তাদের এই রিকোয়ারমেন্ট শুধুমাত্র আপনার পেইজ তৈরি করেছেন সেই শুরু থেকে নয় আপনি যেদিন ভিডিও মনিটাইজেশন এর জন্য এপ্লাই করবেন ঐদিনের থেকে সর্বশেষ মাত্র ৬০ দিনের সবকিছু কাউন্ট হবে। অর্থাৎ ফেসবুক আপনাকে এটা বুঝিয়েছে মোট ৬০ দিনের মধ্যে আপনার ফেসবুক পেইজে ১০,০০০ ফলোয়ার্স এবং ৩০,০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম নিয়ে আসতে হবে।

হ্যাঁ ফেসবুকে এটাও জানিয়েছে যে এই গুলো আপনি বুস্ট করে আনলে কিন্তু তাদের যে নীতিমালা রয়েছে তার মধ্যে আসে না অর্থাৎ এগুলো বুস্ট করার কোনো নীতিমালা নেই আপনাকে ভিডিও আপলোড করে এর পরে আপনাকে একটি করতে হবে। তবে ফেসবুক প্লাটফর্মে এমন সুবিধা রয়েছে ভিডিও আপলোড করলে সেখানে পর্যাপ্ত বিয়ে হয় এবং কোন একটা ভিডিও ভাইরাল হলে সেই ভিডিও থেকেই এটা করা যেতে পারে।

আরো পড়ুনঃ  ফেসবুক পেইজ ব্লু ব্যাজ ভেরিফাইড

ফেসবুক থেকে ইনকাম

মনে রাখবেন এটা কিন্তু শুধুমাত্র ফেসবুক পেইজ এর ক্ষেত্রে ফেসবুক প্রোফাইল গ্রুপ এগুলোর ক্ষেত্রে নয়। ভিডিও মনিটাইজেশনের জন্য কেবল মাত্র ফেসবুক পেইজ প্রযোজ্য। বর্তমানে ফেসবুক আপডেট এর কারণে কিছু পেইজ দেখা যাচ্ছে যে গুলোকে বলা যেতে পারে প্রোফাইল পেইজ এগুলো তো হবে তবে একটু ডিফিকাল্ট ওয়ে রয়েছে।

ফেসবুক থেকে ইনকাম করার আরও অনেক বেশি মাধ্যম রয়েছে যেগুলো ফলো করে আপনি উপার্জন করতে পারেন শুধুমাত্র মোবাইল নিয়ে তবে আমি মনে করি সব থেকে সহজ এবং ইজি মাধ্যম হচ্ছে ভিডিও মনিটাইজেশন কারণ আপনি ভিডিও করতে পারবেন মোবাইল থেকে এবং যদি চান আপনি ভিডিও ইডিয়েট তাও মোবাইল থেকে করতে পারবেন তাই সব থেকে সহজ পদ্ধতি হচ্ছে ভিডিও মনিটাইজেশন করতে পারবেন।

ভিডিও মুভি টেনশন করার পূর্বে আপনাকে বেশ কিছু নীতিমালা অবশ্যই মানতে হবে যে গুলোর মধ্যে প্রথম নীতিমালা হচ্ছে কপি কনটেন্ট গ্রহণযোগ্য নয়। অর্থাৎ আপনি চাইলেই অন্য কোন ফেসবুক পেইজের কিংবা অন্য কোন ইউটিউব চ্যানেলের অথবা অন্য কোনো সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে ভিডিও এনে আপনার পেইজে আপলোড করে ইনকাম করতে পারবেন না এটা সম্পূর্ণ ফেসবুক নীতিমালার বাইরে।

এই সকল বিষয়গুলো অবশ্যই আপনার মাথায় রাখতে হবে এবং আপনাকে জানতে হবে। ফেসবুক পেজ মনিটাইজেশন হলে আপনি আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সেখানে অ্যাড করতে পারবেন এবং প্রত্যেক মাসে তারা অটোমেটিক আপনার পেজ থেকে ইনকাম হয়েছে সেটাকে ব্যাংক একাউন্টে টেনেস্পার করে পাঠিয়ে দিবেন এবং আপনি খুব সহজেই ব্যাংক থেকে আপনার টাকাটা কে তুলতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ  শক্তি বাড়ানোর উপায়

এছাড়া সফট ইউনিক্স আইটি ওয়েবসাইটে অনেক ধরনের ইনকাম সোর্স রয়েছে আপনি ইনকাম সোর্স গুলো জেনে ইনকাম করতে পারেন।

বর্তমানে লক্ষ লক্ষ টাকা ফেসবুক থেকে ইনকাম করে নিচ্ছে ভিডিও দিয়ে যেকোনো ধরনের ভিডিও ফেসবুক পেজে দেয়া যাচ্ছে এবং এখানে প্রচুর ভিজিটর পাওয়া যাচ্ছে যার ফলে ইনকাম ভালো হচ্ছে তাই আমি বলব যথারীতি আপনি অপেক্ষা না করে এখনই এই প্লাটফর্মে ব্যবহার করুন এবং এখানে নেমে পড়ুন। ইনকামের লক্ষ্যে এটি আপনার অবশ্যই করা জরুরি।

অনলাইনে অনেক অনেক প্লাটফর্ম রয়েছে যেখান থেকে ইনকামের আশ্বাস দিয়ে থাকলেও তারা পর্যাপ্ত ইনকাম দিয়ে আয়না অথবা আপনাকে তাদের নীতিমালা বললে সেই নীতিমালা অনুযায়ী আপনি ইনকাম করেছেন কিন্তু সেই টাকা আপনি তুলতে পারেন না তারা টাকা আটকে দেয় কিন্তু সেখানে আমরা বিশ্বস্ত একটি প্ল্যাটফরম পাচ্ছি ফেসবুকে খান থেকে আপনি সহজেই টাকা ইনকাম করতে পারেন। ফেসবুক থেকে ইনকাম

আমরা পরবর্তী আর্টিকেল এর মাধ্যমে জানবো কিভাবে ইউটিউব থেকে উপার্জন করা যায়। ইউটিউব থেকে উপার্জন করার পূর্বে তাদের নীতিমালা কি এবং ইউটিউব মনিটাইজেশন করতে হলে তাদের রিকোয়ারমেন্ট কি এসকল বিষয়বস্তুগুলো আমরা পরবর্তী আর্টিকেল এর মাধ্যমে জেনে নিব। ফেসবুক থেকে ইনকাম