ওয়ার্ডপ্রেস কি? এবং কেন এটি ব্যবহার করবেন? এর সুবিধা সমূহ! | Jemon Blog
ঢাকাসোমবার - ১৫ নভেম্বর ২০২১
  1. Ecommerce
  2. অনলাইন জব
  3. গল্প জানুন
  4. টেক আপডেট
  5. লাভ স্টোরি
  6. সাকসেস লাইফ
  7. সোস্যাল আপডেট
  8. হেলথ টিপস

ওয়ার্ডপ্রেস কি? এবং কেন এটি ব্যবহার করবেন? এর সুবিধা সমূহ!

যেমন ব্লগ ডেক্স
নভেম্বর ১৫, ২০২১ ৩:২১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ওয়ার্ডপ্রেস কি? এক কথায় বলতে গেলে ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি সফটওয়ার। যে কোনো একজন সাধারণ মানুষ পোগ্রামিং নলেজ ছাড়াই খুব সহজে দারুণ মানের ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারে এই ওয়ার্ডপ্রেস সফটওয়্যার এর মাধ্যমে। এটাকে সংক্ষেপে বলে CMS যার পুরু নাম হল কনটেন্ট ম্যনেজম্যন্ট সিষ্টেম। একটি ওয়েবসাইটে অনেক ধরনের কনটেন্ট থাকে যেমনঃ ছবি, ভিডিও, বিভিন্ন লেখা এই গুলোকে বলে কনটেন্ট। আর এই কনটেন্ট গুলো ডাইনামিকেলি পরিবর্তন করা যায় ওয়ার্ডপ্রেস সফটওয়্যার এর মাধ্যমে। ওয়ার্ডপ্রেস ছাড়াও আর অনেক সফটওয়্যার আছে যেমনঃ জুমলা, উইক্স, ওপেনকাড, ম্যজেনডা এই ধরনের আর অনেক সফটওয়্যার আছে ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য। ওয়ার্ডপ্রেস কি

কিন্তু ওয়ার্ডপ্রেস বাংলাদেশ সহ পৃথিবীর অনেক দেশেই এখন জনপ্রিয়। তার প্রধান কারণ হল এটা অনেক সিকিউ এবং ইউজার ফেন্ডলি। যার কারণে পৃথিবীর প্রায় ৭০% ওয়েবসাইট এখন ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে তৈরি। ওয়ার্ডপ্রেস সফটওয়্যার দিয়ে আপনি যে কোনো ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। ওয়ার্ডপ্রেস কি?যেমনঃ ই-কমার্স, পার্সনাল ব্লগিং, নিউজপেপার সহ যে কোনো ধরনের প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট এই ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে তৈরি করতে পারবেন। এটা ইউজার ফেন্ডলি হওয়ায় যে কেউ এটা ব্যবহার করতে পারে। কিন্তু অনান্য CMS ইউজার ফেন্ডলি না হওয়ায় ওয়ার্ডপ্রেস এর চাহিদা প্রচন্ড পরিমানে বেড়ে গেছে। এটি ব্যবহার করা যেমন সহজ তেমনি এটা ম্যেনেজ করারও অনেক সহজ। তাই যে কেউ কোডিং নলেজ ছাড়াই এটা সহজে ম্যেনেজ করতে পারে। ওয়ার্ডপ্রেস কি

আরো পড়ুনঃ  মোবাইল ফোন এর কিছু গুরুত্বপূর্ণ সেটিংস

স্টেটিক ওয়েবসাইট এবং ডাইনামিক ওয়েবসাইট এর পার্থক্য কি?

এখন বলি স্টেটিক ওয়েবসাইট এবং ডাইনামিক ওয়েবসাইট এর মধ্যে পার্থক্য কি। ত প্রথমে বলি একটি ওয়েবসাইট এ আমরা যে কনটেন্ট গুলো দেখতে পাই মানে ছবি, লেখা যেগুলো দেখতে পাই এগুলো প্রতিনিয়ত যে ওয়েবসাইটে পরিবর্তন হয় ঐ ওয়েবসাইটকে ডাইনামিক ওয়েবসাইট বলে। আর যে ওয়েবসাইট তৈরি করার পর আর কোনো কিছু চেন্জ করতে হয় না ঐসব ওয়েবসাইটকে স্টেটিক ওয়েবসাইট বলে।

স্টেটিক ওয়েবসাইট কোন গুলো?

যে ওয়েবসাইট একবার তৈরি করে আর কোনো পরিবর্তন করার কোনো প্রয়োজন পরেনা যে ওয়েবসাইট গুলোকে স্টেটিক ওয়েবসাইট বলে। যেমনঃ প্লাগারিজম চেকার,ইমেজ কনবাটার ইত্যাদি। স্টেটিক ওয়েবসাইট এর কনটেন্ট পরির্বতন করতে হলে আপনাকে কোডিং জানতে হবে। নয়ত এর কনটেন্ট পরিবর্তন করা সম্ভব না।

ডাইনামিক ওয়েবসাইট কোন গুলো?

যে ওয়েবসাইট এ কনটেন্ট প্রতিনিয়ত আপডেট করতে হয় এবং ইউজার দের রিয়েলটাইম ডাটা প্রদর্শন করতে হয় তাকে ডাইনামিক ওয়েবসাইট বলে।যেমন আপনি আপনার ব্লগিং এর জন্য ওয়ার্ডপ্রেস সফটওয়্যারের সহায্য নেন। যার ফলে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে যে ওয়েবসাইট গুলা তৈরি করবেন সে গুলার কনটেন্ট পরিবর্তন করার জন্য আপনাকে কোনো কোডিং নলেজ লাগবে না।সুধু ডাগন ডপ করে খুব সহজে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন এবং আপনার কনটেন্ট ইউজারদের সামনে পর্দশন করতে পারেন এটিই হচ্ছে ডাইনামিক ওয়েবসাইট এর বৈশিষ্ট্য। যেমনঃ প্রথম আলো, জাগ নিউজ ইত্যাদি।

আরো পড়ুনঃ  কিভাবে নিস বাছাই করবেন

ওয়ার্ডপ্রেস কি কেন আমরা ওয়েবসাইট বানানোর জন্য নির্বাচন করব?

এখন প্রায় বিশ্বের ৭০ পার্সেন্ট ওয়েবসাইট ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে তৈরি তাই এর চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে আর এর চাহিদা বৃদ্ধির প্রধান কারণ হলো এটা সহজে ম্যানেজমেন্ট করা যায় এবং ইউজার ফ্রেন্ডলি যার কারণে ব্যাকেট ডে এবং ফন্টেন্ড এর ভালো পারফরম্যান্স পাওয়া যায়। ওয়ার্ডপ্রেস কি

এবং এর সিস্টেম কারিকুলাম সহজেই যেকোনো নন প্রোগ্রামার হওয়া ছাড়াই ড্রাগ এন্ড ড্রপ করে একটা প্রফেশনাল মানের ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারে। যার কারণে এটি বিশ্বের এবং দেশের বাজারে অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। বিষয়ে করে বাইরে দেশের মানুষ খুব সহজে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে নিজের জন্য পার্সনাল ওয়েবসাইট তৈরি করতে সম্ভব হচ্ছে এই ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারের মাধ্যমে। ওয়ার্ডপ্রেস কি

আর প্রমিয়াম কোয়ালিটির থিম এবং প্লাগিন এর মাধ্যমে এটিতে আরো ভালো ও হাই কোয়ালিটির ফাংশন এড করা সম্ভব হচ্ছে। তাই এর ডেভলপমেন্ট এবং গ্রহক চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এক কথায় বলতে গেলে যেকোনো মানুষ তার প্রথম ওয়েবসাইটি ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে খুব সহজে তৈরি করতে সম্ভব হবে।

আরো পড়ুনঃ  মোবাইল দিয়ে আর্টিকেল লিখে এডসেন্স পাওয়া